সিগমুণ্ড ফ্রয়েডের মনঃসমীক্ষণের রূপরেখা এবং স্বপ্নের ব্যাখ্যা- উমেচিং রাখাইন

সিগমুণ্ড ফ্রয়েড ১৮৫৬ সালের ৬ই মে মোরাভিয়ার অন্তর্গত ফ্রাইবার্গ শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তখন মোরাভিয়া অস্ট্রিয়া-হাংগেরীর একটি অংশ ছিল।পরবর্তিতে এটি চেকোস্লোভাকিয়ার অন্তর্গত হয়। মনঃসমীক্ষণ এর জনক হলেন ফ্রয়েড। ফ্রয়েডই হচ্ছেন প্রথম ব্যক্তি যিনি সবচেয়ে যুক্তিসংগত ভাবে স্বপ্নের রহস্যের ব্যাখ্যা করেছেন। ফ্রয়েডের মনঃসমীক্ষণ এর রূপরেখা : মনঃসমীক্ষণ সাধারণত মনোবিজ্ঞান এর কিছু...

বিজ্ঞানকে কেন ভালোবাসি- অভি দেওয়ান

একবার এক বিজ্ঞানী তার এক কবি বন্ধুর সাথে বাগানে বসে গল্প করছেন। বাগানের একটি অংশে খুব সুন্দর গোলাপের বাগান রয়েছে। বাতাসে গোলাপের সুন্দর গন্ধ ভেসে আসছে।সেই গন্ধ পেয়ে কবি বিজ্ঞানীর প্রতি মন্তব্য করলো,” তুমি আর কি বুঝবে এই ফুলের সুবাস! তোমার তো এই ফুলটি দেখলেই ফুলটির ভিতর কি আছে...

আপনি কি বিজ্ঞান শিক্ষিত?-অভি দেওয়ান

“When you’re a kid, you’re a born scientist” একটি শিশু জন্মগতভাবেই বিজ্ঞানী। বিশ্বাস হচ্ছে না? প্রথমে ভাবুন,”একজন বিজ্ঞানী কী করে? বিজ্ঞানীরা প্রকৃতির বিভিন্ন জিনিস দেখে আর নিজেকে বলে, ” আরে! ওইটা আসলে কি? একটু জিনিসটা আরও ভালো করে দেখি। একটু নাড়াচাড়া করি। জিনিসটাকে একটু উল্টিয়ে দেখি।” একটি শিশু কিন্তু...

কেমন ছিল সুদূর অতীতের বিজ্ঞান চর্চার পথ?

এখনকার যে বিজ্ঞানকে আমরা দেখতে পাচ্ছি, এই বিজ্ঞান কিন্তু সুদূর অতীতে এমনটা ছিল না। বিজ্ঞান চর্চার পথ ছিল কাঁটায় ভরা। বিজ্ঞানকে পাড়ি দিতে হয়েছে অকূলসম পথ যেটা কখনোই অনুকূল ছিল না, প্রতিকূলতা লেগেই ছিল। বিজ্ঞান চর্চার ধরণও এমন ছিলনা। বিজ্ঞানীরাও বর্তমান বিজ্ঞানীদের মত ছিলেন না। সর্বদাই ছিল, রহস্যময়তা!  ...